সাংবাদিক সুবর্ণা নদী হত্যা, শ্বশুর আটক

সাংবাদিক সুবর্ণা নদী হত্যা

0
54
সুবর্ণা নদী হত্যা

নিহত ব্যক্তি দৈনিক জাগ্রত বাংলার সম্পাদক ও প্রকাশক এবং বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল ‘আনন্দ টিভি’র পাবনা প্রতিনিধি ছিলেন। গতকাল মঙ্গলবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় নিহতের সাবেক শ্বশুর ইদ্রাল ওষুধ কোম্পানি এবং শিমলা ডায়াগনস্টিক সেন্টারের মালিক আবুল হোসেনকে আটক করেছে পুলিশ।

পাবনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার গৌতম কুমার বিশ্বাস জানান, পাবনা পৌর সদরের রাধানগর মহল্লায় আদর্শ গার্লস হাইস্কুলের পাশের গলিতে বসবাস করতেন। ঘটনার আগে মোটর সাইকেলে আসা মুখ বাধা অজ্ঞাতনামা কয়েকজন বাসার কলিং বেল চাপে। এ সময় সুবর্না নদী নিজে গেট খোলার সঙ্গে সঙ্গে তাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে অতর্কিত এলোপাথারী কুপাতে থাকে।

এক পর্যায়ে তার চিৎকারে আশপাশের লোকজন ছুটে এলে দুর্বৃত্তরা মোটরসাইকেলে পালিয়ে যায়। পরে তাকে উদ্ধার করে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

জানা যায়, আবুল হোসেনের ছেলে রাজীবের সঙ্গে নদীর দ্বিতীয় বিয়ে হয়েছিল সুবর্ণা নদীর। কিন্তু যৌতুকের দাবিতে নদীকে তালাক দেন রাজীব। এ ঘটনায় রাজীব ও আবুল হোসেনসহ ৩ জনকে আসামি করে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেন নদী। গতকাল ২৮শে আগস্ট মঙ্গলবার সেই মামলার শুনানি হয়। সুবর্ণা নদীর জান্নাত নামে ৬ বছরের একটি কন্যা সন্তান রয়েছে।

Payoneer | Get Paid by Marketplaces & Direct Clients Worldwide

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here